কোডিং VS প্রোগ্রামিং । পার্থক্য কি, কোথায় ??

কোডিং VS প্রোগ্রামিং । পার্থক্য কি, কোথায় ??

কখনো এমন কথা শুনেছেন কেউ বলছে “আমি প্রোগ্রামিং করছি। কিংবা করব”?? আবার কেউ কেউ বলে “আমি একজন কোডার, কোডিং করি”। কিন্তু, দুইটা শব্দ কি সমার্থক?? নাকি দুইটা সম্পুর্ন ভিন্ন শব্দ?? দুইটার পার্থক্য জেনেই বা আমাদের কি লাভ?? কোনটা দ্বারা কী বোঝায়?? এমন সব সাধারণ প্রশ্নের অসাধারন উত্তর নিয়ে আজকে লেখাটি।
Coding VS Programming. What is the difference and where??
Image Credit www.gadgetsnow.com


কোডিং VS প্রোগ্রামিং ??

কোডিং এবং প্রোগ্রামিং দুইটার ভিন্নতা বা বৈশিষ্ঠ্য জানতে হলে প্রথমে শাব্দিক অর্থ এবং বিস্তারিত জেনে নিতে হবে। তাই,


প্রোগ্রামিং কী??

প্রোগ্রাম হচ্ছে কম্পিউটার কে আগে থেকে কিছু কমান্ড দিয়ে সেভ করে রাখা স্ক্রিপ্ট। আর এই স্ক্রিপ্ট লেখার কাজই হচ্ছে প্রোগ্রামিং। আমরা প্রোগ্রামিং বলতেই শুধু কোন একটা প্রোগ্রামিং ভাষায় স্ক্রিপ্ট লেখা বুঝি। যদিও প্রোগ্রামিং এর বেশ কিছু ধাপ আছে। যথা
  1. কোন একটা সমস্যা চিহ্নিত করা।
  2. সমস্যাটি সমাধানের জন্য বেশ কিছু পথ খুঁজে পাওয়া।
  3. সেই পথ গুলোকে ধাপে ধাপে লেখা ( এলগরিদম )
  4. যদি অনেক ডাটা থাকে তাহলে প্রয়োজনীয় বেস্ট ডাটা স্ট্রাকচার ব্যবহার করা।
  5. আর উক্ত ধাপগুলোর মধ্য থেকে সবথেকে দ্রুত এবং কম স্পেস নেই অর্থাৎ সবথেকে কমফোর্টেবল ধাপকে বেছে নেওয়া।
  6. ওই ধাপ গুলোকে সুডোকোড বা সাংকেতিক ভাষায় প্রকাশ করা অথবা ফ্লোচার্ট এর মাধ্যমে সহজে উপস্থাপন করা।
  7. এবারে কোন একটা প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ এর মাধ্যমে ওই সুডোকোড গুলোকে স্ক্রিপ্ট আকারে অর্থাৎ প্রোগ্রাম আকারে লিখে সমাধান করা।
এটা হচ্ছে প্রোগ্রামিং। কোন একটাও ধাপ বাদ দিলে সেটা আর প্রোগ্রামিং থাকবে না। তাই, উপরের সবগুলো ধাপের সমন্বিত রুপ হচ্ছে প্রোগ্রামিং!! এবারে দেখি




কোডিং কী ??

কোডিং হচ্ছে Coding শব্দের বাংলা প্রতিরূপ। Coding শব্দ এসেছে ইংরেজি Code থেকে যার অর্থ হচ্ছে সংকেত, চিহ্ন বা গুপ্ত লেখনি। আর বিজ্ঞান এবং প্রযুক্তির জুগে এসে আমরা Code শব্দের সঙ্গে অতি পরিচিত।

Code এর সঙ্গে ing যোগ করে বর্তমানে তা Coding এ রুপ নিয়েছে। আর এই কোডিং বলতে বোঝায় কোন একটা প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ দিয়ে কোন সমস্যার সমাধানে নির্দিষ্ট সমাধানের পথের জন্য প্রোগ্রাম বা স্ক্রিপ্ট লিখে ফেলা। এখন নিশ্চয় খেয়াল করেছেন এই কোডিং হচ্ছে প্রোগ্রামিং এর ৬ষ্ঠ বা সর্বশেষ ধাপ।

তাই, কেউ কোডিং করছে বলতে এটাই বোঝায় যে সে প্রোগ্রামিং এর সবগুলো ধাপ অতিক্রম করে এখন শেষ ধাপে আছে। আর যে কোড করে তাকে ওই কোডার বলে।

অর্থাৎ, যারা প্রোগ্রামার তারাই কোডার কিন্তু যারা কোডার তারাই প্রোগ্রামার না।


সমার্থক হিসেবে ব্যবহার করলে সমস্যা কোথায়??

ওয়েল, আপনি কোডার এবং প্রোগ্রামার কে সমার্থক হিসেবে ব্যবহার করতে চাচ্ছেন। তবে, ধরুন

কেউ একজন কম্পিউটার এর দোকান দিয়েছে এবং সেখানে সে শুধু কম্পোজ করে। অর্থাৎ, কারোর হাতে লেখা সে কম্পিউটার এ লিখে প্রিন্ট করে দেই। এখন আপনি একটা কবিতার বই লিখেছেন, কিন্তু আপনার যেহেতু কম্পিউটার নেই তাই হাতে লিখে সেটা ওই দোকানে কম্পোজ করতে দিয়েছেন। এখন, বইমেলা ২০২০ এ আপনার বই প্রকাশ হয়েছে এবং সবাইকে আপনি বলে বেড়াচ্ছেন “আমি একটা বই লিখেছি”।

আর তখন যদি ওই দোকানের কম্পোজার বলে নাহ!! বইটা আমি লিখেছি। তাহলে কিন্তু, উনার কথা ঠিকই আছে। বইটা উনিই লিখেছেন।
আসলে, সেটা হবে না। কারণ, বইটা শুধু উনি টাইপ করে দিয়েছেন। আর কবিতা লেখা, সেটাতে ছন্দ দেয়া সহ প্রকাশ অবধি সব কাজ আপনি করেছেন। তাই, বইটা আপনার।

 তেমনই, ওই প্রোগ্রামার হচ্ছেন আপনি আর কোডার হচ্ছেন ওই দোকানের লোকটা।
তাহলে, নিশ্চয় বুঝতে পেরেছেন কেন সমার্থক হিসেবে ব্যবহার করা যাবে না।


আশা করি, উত্তর পেয়েছেন। যদি কোন প্রশ্ন বা মতামত থেকে থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্টে জানিয়ে দিন।


আপনি তো জেনে গেছেন। কিন্তু আপনার কোন বন্ধু হয়তো পার্থক্য না জেনে অন্যের কাছে সমার্থক হিসেবে ব্যবহার করে লাঞ্ছিত হচ্ছে। তাই, জাস্ট সিম্পল একটা ক্লিকে নিচের সোশ্যাল বাটন গুলো থেকে শেয়ার ফেলুন লেখাটি!!

Post a Comment

1 Comments

  1. Mind Blowing explain!! Thanks bro for your valuable article..

    ReplyDelete